প্রখর অভিলাষ--মোঃ সুমনুল্লাহ সুমন

Ad

প্রখর অভিলাষ--মোঃ সুমনুল্লাহ সুমন


প্রখর অভিলাষ

----মোঃ সুমনুল্লাহ সুমন


গ্রীষ্মের দাবদাহে প্রখর-দীপ্ত সূর্যের নীচে,
অথবা কনকনে শীতের দংশনে কেউ সাথী হোক,
হয়ে উঠুক আমার বেঁচে থাকার জাগতিক প্রেরণা,
অথবা হোক আমার জীবন্ত মহাকাব্যের চিহ্ন।
আমাকে প্রত্যাশিত সফলতার পথ দেখাক,
প্রতিটা চুম্বনে জাগিয়ে তুলুক সুতীব্র আগ্রহ।
আমার মাঝে ব্যাপ্তি হোক তার অভিজ্ঞতার আস্বাদ,
মাঘের কুহেলি মিশ্রিত রোদ হোক প্রতিবন্ধকতা মোকাবেলায়,
আমার নিদ্রাপতিত আত্মাকে প্রোথিত করুক।
ধনেশ পাখির মতো আমার গহীনে ঝড় তুলুক,
জাগ্রত করুক অর্ন্তনিহিত আবেগমথিত আকাঙ্ক্ষা,
হয় সে মাঘের সন্যাসী নয়ত বা প্রার্থনার নদী হোক,
অথবা ছুটিবার প্রাক্বালে সে মেঠো পথ হোক।
সমগ্র পৃথিবীকে আমার মহাত্মার পূণ্যশ্লোক শোনাক,
তার সরলতা আর উষ্ণতার অন্তঃসলিলা
আমার মাঝে প্রবাহিত হোক অনবরত,
আমার সুগভীর চিন্তা তার মর্মস্পর্শ করুক।
জোস্নালোকিত রাত্রিতে সে আমাকে দেখুক,
আমাী খুশির তরঙ্গগুলো তাকে বিমোহিত করুক,
কখনও যেন আমার মাঝে ঘৃণার বীজ না জন্মে,
তার পরম ভালবাসা আমাকে এতটাই সুমহান করপ তুলুক।
তার অবদানে সূচিত হোক মন-অভিভূত দৃশ্য,
তার হাতেই রচিত হোক নয়াদিগন্তের মহাকাব্য,
জগৎ জুড়িয়া নন্দিত হোক আমার প্রচেষ্টা,
যুগ-যুগান্তরে অমর হোক আমার কীর্তি,
হোক আমার আবক্ষ মূর্তিতে শ্রদ্ধাঘ্য অর্পণ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য